কে এই মাদক সম্রাট খলিশাকুন্ডির আব্দুল গোলাম?

0
1186

কুষ্টিয়া অফিস :: খলিশাকুন্ডি এলাকার মাদক নিয়ে লেখার আজ পড়ুন প্রথম প্রতিবেদন…..! কুষ্টিয়া দৌলতপুর উপজেলার খলিশাকুন্ডি কাঁচাবাজারের পাশে চলছে মাদকের অবাধে কেনা বেচা। সরেজমিনে খোাঁজখবর নিয়ে জানা যায়, স্থানীয় মাদক সম্রাট আব্দুল গোলামের কাছে ইয়াবা, হিরোইন, গাঁজা থেকে শুরু করে সব ধরনের মাদক পাওয়া যায় এবং সেই মাদকগুলোর বেশীরভাগ ক্রেতা হলো উঠতি বয়সের যুবক ও কিশোররা। সব থেকে আশ্চর্য বিষয় হল, শুধু রাতের আধারেই না প্রকাশ্যে দিবালোকে চলছে এইসব মাদকের বেচা কেনা, যেন দেখার কেউ নেই! এলাকাবাসির অভিযোগ, খলিশাকুন্ডি পুলিশ ফাঁড়ির কিছু অসাধু কর্মকর্তা অপরাধ দমন বাদ দিয়ে সব সময় টাকার ধান্ধায় ব্যাস্ত থাকেন। মাদক সম্রাট ও টাউট শ্রেনীর লোকজনের সাথে সখ্যতা গড়ে অর্থ বানিজ্যের দিকে ঝুকে পড়ায় এলাকায় অপরাধ প্রবণতা বাড়ছে। এছাড়াও নাকি খলিশাকুন্ডিতে বিভিন্ন মাদক স্পট ও জুয়ার আসর থেকে মাসোহারাও আদায় করেন বলে জানান স্থানীয়রা। সূত্র মতে জানা যায়, এই মাদক সম্রাট গোলাম এলাকায় দিনের পর দিন মাদক ব্যবসা করে যাচ্ছে পুলিশ ফাঁড়ির নাকের ডগায়, কিন্তু এখানকার পুলিশ ফাঁড়ি কিছুই বলছে না তাদের, এর কারন খুঁজতেই বেরিয়ে আসে মাদক ব্যবসায়ীদের সাথে জড়িত কে কে? এলাকাবাসীরা আরও অভিযোগ করে বলেন, খলিশাকুন্ডি পুলিশ ফাঁড়ির কাছেই চলে মাদকের ব্যবসা এবং এই পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তাদের সাথে আতাত করে দেদারছে মাদকের ব্যবসা করে যাচ্ছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে ভূক্তভোগী ও স্থানীয়রা জানান, এই মাদক সম্রাট আব্দুল গোলামের জন্য দিন দিন এই এলাকায় ব্যাপক নৈতিক অবক্ষয়ের সৃষ্টি হচ্ছে ও এলাকাতে গত কয়েক মাসে আশঙ্কাজনক ভাবে চুরি ও ছিনতাইয়ের মত ঘটনা বেড়েই চলছে, যার কারন মূলত এই মাদক। এলাকাবাসী এই বিষয়ে প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেছেন। জানা যায়, এ ব্যাপারে স্থানীয়রা এর প্রতিরোধ করলেও কোন ফল পাওয়া যায়নি বলে অভিযোগ উঠেছে। যদিও কুষ্টিয়ার সুযোগ্য পুলিশ সুপার প্রলয় চিসিম যোগদানের পরপরই মাদক ও অন্যায়ের বিরুদ্ধে জিহাদ ঘোষনা করছেন। তাই সচেতন মহলের দাবী উক্ত বিষয়টি কুষ্টিয়ার সুযোগ্য পুলিশ সুপার মহাদয়ই খতিয়ে দেখবেন।

একটি উত্তর ত্যাগ