ঝিনাইদহ পাসপোর্ট অফিসের উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল মোত্তালেব সরকারের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানীর অভিযোগ

0
1681

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল মোত্তালেব সরকারের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানীর অভিযোগ করেছেন একই অফিসের অফিস সহকারী রুখসানা আফরিন। পাসপোর্ট অফিসের মহাপরিচালকের বরাবর লিখিত অভিযোগ করার পর বিষয়টি তদন্ত করা হয়েছে। বুধবার ডিজি অফিসের সহকারী পরিচালক (সংস্থাপন) নাসরিন পারভিন নুপুর অভিযোগটি তদন্ত করেন। তদন্তকালে উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল মোত্তালেব সরকারের বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগের সত্যতা পান তিনি। পাসপোর্ট অফিসের মহাপরিচালক বরাবর লিখিত অভিযোগে রুখসানা আফরিন উল্লেখ করেন, ঝিনাইদহ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে যোগদানের পর থেকেই উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল মোত্তালেব সরকার তাকে মানসিকভাবে নির্যাতন করে আসছেন। নিজের সংসার ও মান সন্মানের দিকে তাকিয়ে তাকে সংশোধন হওয়ার অনুরোধ করি। কিন্তু তিনি আমাকে অব্যাহতভাবে আপত্তিকর ও অনৈতিক প্রস্তাব দিতে থাকেন। অফিস শেষ করে বাসায় গেলে তিনি রাতে তার বাসায় যাওয়ার প্রস্তাব দেন, যা আমার জন্য খুবই লজ্জা ও মানসিক যন্ত্রণার। তার কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় গত ৭ আগষ্ট তিনি আমাকে বিনা অপরাধে শোকজ করেন। ৯ আগষ্ট আমি তার চিঠির উত্তর দিলে তিনি সন্তোষজনক হয়নি বলে চিঠি ফেরত দেন। এরপর তিনি আমাকে হুমকী ও চাপ প্রয়োগ করে চিঠি সংশোধন করে তার মতো করে জবাব প্রদানে বাধ্য করেন। ফলে আমি এখন স্বাভাবিকভাবে অফিস করতে পারছি না। আমাকে হুমকী দেওয়া হচ্ছে। এদিকে পাসপোর্ট গ্রাহকদের অভিযোগ উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল মোত্তালেব সরকারের দুর্ব্যবহারে তারা সন্তুষ্ট নন। তিনি পাসপোর্ট প্রতি ৯০০ টাকা ঘুষ আদায় করেন। টাকা না দিলে দিনের পর দিন ঘোরানো হয়। ইমার্জেন্সি পাসপোর্ট করতে গেলে সরকারি ফি বাদেও ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা তাকে দিতে হয়। এমন অভিযোগ করেন ঝিনাইদহ শহরের চাকলাপাড়ার কমল কুমার। তার কথায় গত ৩১ মে তার কাছ থেকে ২১ হাজার টাকা নেন এ কর্মকর্তা। মহেশপুর এলাকার একাধিক ব্যক্তি এ ধরণের অভিযোগ করেন। দ্রুত পাসপোর্ট প্রদানের কথা বলে ২০/২৫ দিন পর দেওয়া হয়। অভিযোগ পাওয়া গেছে পাসপোর্ট অফিসে প্রতিবাদ করলে ডিবি পুলিশের ভয় দেখানো হয়। এ বিষয়ে উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল মোত্তালেব সরকার জানান, প্রধান কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক (সংস্থাপন) নাসরিন পারভিন নুপুর নিয়মিত ভিজিটে এসেছিলেন। তার বিরুদ্ধে কেউ কোন অভিযোগ করেনি। এ সব মিথ্যা এবং বানোয়াট। তাকে সরানোর চক্রান্ত করা হচ্ছে।