চেন্নাইয়ে শ্মশান পরিচালনার দায়িত্বে এক নারী

0
1645

গড়াইনিউজ২৪::হিন্দুদের মরদেহ পোড়ানোর জন্য শ্মশানে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে কোন হিন্দু নারী শ্মশানে প্রবেশ করতে পারেন না। কিন্তু চেন্নাইয়ে পারভিনা সলেমান নামের এক নারী সেখানকার বড় ও ব্যস্ত একটি শ্মশান পরিচালনার কাজ করছেন। খবর বিবিসির। চেন্নাইয়ের আন্না নগর জেলায় অবস্থিত ভালানকাডু শ্মশান সেখানকার সবচেয়ে বড় শ্মশান। এখানকার পরিচালক হিসেবে কাজ করছেন সলেমান। একটি মৃতদেহ এখানে আসার পর তা কিভাবে সৎকার করা হবে সেসব বিষয় তত্ত্বাবধান করেন তিনি। অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে শ্মশানের বিভিন্ন কাজ করে যাচ্ছেন এই সাহসী নারী। পারভিনা বলেন, একটা নারী শ্মশানের কার্যক্রম পরিচালনা করছে অনেকেই এটা স্বাভাবিকভাবে নেয় না। কেউ আমাকে বিদ্রুপ করে, কেউ পাশ থেকে বাজে মন্তব্য করে। তারা প্রশ্ন করে যে আমি কোন পরিবারের মানুষ? হয়তো খারাপ মানুষ তাই এ কাজে এসেছি। এসব কথা আসলেই খুব কষ্ট দেয়।

তিনি বলেন, প্রথম দিকে অনেকেই তাকে এসিড নিক্ষেপের হুমকি দিয়েছিল। কিন্তু তারা কারও চাকরি নেয়ার ক্ষমতা রাখে না। সময় বদলে গেছে। প্রায় বারো বছর ধরে এই শ্মশান পরিচালনার কাজ করছেন পারভিনা। এখন অনেকেই এ বিষয়টা স্বাভাবিকভাবেই গ্রহণ করেছে বলে জানান তিনি।