নার্গিসের শারীরিক অবস্থা নিয়ে ৭২ ঘণ্টা আগে কিছু বলা সম্ভব নয়

0
647

গড়াইনিউজ২৪.কম:: সিলেটে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আহত তরুণী খাদিজা আক্তার নার্গিসের শারীরিক অবস্থা নিয়ে ৭২ ঘণ্টা আগে কিছু বলা যাবে না বলে জানিয়েছেন তার অপারেশন করা নিউরো সার্জন রেজাউস সাত্তার। তবে খাদিজার অবস্থা সংকটাপন্ন-এটা জানিয়েছেন তিনি।
মঙ্গলবার সন্ধ্যা ছয়টায় হাসপাতালে অপেক্ষমান সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন এই সার্জন। তিনি বলেন, ‘খাদিজা ব্রেনে সিভিয়ার ইনজুরি নিয়ে আমাদের কাছে এসেছিল। তাকে ভেন্টিলেশনের রাখা হয়েছিল। এখন তাকে ইলেকট্রিক্যাল ভেন্টিলেশনে রাখা হবে। আগামী ৭২ ঘন্টার আগে তার শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে কিছু বলা যাবে না।’
বিকালে হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক মির্জা নাজিম উদ্দিন বলেছিলেন, খাদিজার বাঁচার সম্ভবনা খুবই বম। তার মাথায় অনেকগুলো কোপের চিহ্ন রয়েছে। ধারালো অস্ত্রের আঘাত তার মাথার খুলি ভেদ করে মগজের ক্ষতি করেছে।’
নিউরো সার্জন রেজাউস সাত্তার বলেন, তারা খাদিজার অবস্থা নিয়ে তার চাচা ও মামার সঙ্গে যোগাযোগ রাখবেন। তার স্বাস্থ্যের উন্নতি ও অবনতির কথা তাদেরকেই জানানো হবে। এ ব্যাপারে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ চাইলে গণমাধ্যমকে আনুষ্ঠানিকভাবে জানাতে পারে।
গত সোমবার বিকালে সিলেটে সরকারি মহিলা কলেজ ক্যাম্পাসে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহসম্পাদক বদরুল আলম খাদিজাকে কোপানোর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে গেছে। এই ঘটনার পর বদরুলকে পিটুনি দিয়ে পুলিশে হস্তান্তর করা হয়। আর তার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন খাদিজার চাচা আবদুল কুদ্দুস।
খাদিজার ওপর হামলার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চেয়েছেন ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেনও। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল জানিয়েছেন, রাজনৈতিক পরিচয়ে কেউ পার পাবে না। খাদিজার ওপর হামলাকারীর শাস্তি নিশ্চিত করা হবে।
বদরুলকে এরই মধ্যে তার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। এই ঘটনা তদন্ত করতে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। তারা প্রতিবেদন দিলেই এ বিষয়ে চূড়ান্ত ব্যবস্থা নেয়া হবে।