শিবিরে তুরস্কের হামলায় নিহত ৩ ইরাকে শরণার্থী

0
113

জান্নাতুল ফেরদৌস প্রিয়ন্তী,গড়াইনিউজ ২৪.কম: ইরাকে এক শরণার্থী শিবিরে ড্রোন হামলা চালিয়েছে তুরস্ক। এতে তিন বেসামরিক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও দুইজন। প্যাট্রিওটিক ইউনিয়ন অব কুর্দিস্তান পার্টির কর্মকর্তারা বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে এ খবর নিশ্চিত করেছেন। বার্তাসংস্থা রয়টার্স ও এএফপির খবর। ইরাকে কুর্দি এমপি রাশাদ গালালি এএফপিকে জানান, জাতিসংঘ সহায়তা দিয়ে থাকে এমন একটি শরণার্থী শিবিরের স্কুল লক্ষ্য করে ড্রোন হামলা চালিয়েছে তুরস্ক। এই শরণার্থী শিবিরটি নব্বইয়ের দশক তুরস্কে থেকে আসা কুর্দি শরণার্থীরা স্থাপন করেছিল। জাতিসংঘের সহায়তা দিয়ে থাকে এমন শরণার্থী শিবিরে হামলায় উদ্বেগ জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এর আগে গত সপ্তাহে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিস্যেপ তাইয়্যেপ এরদোগান ইরাকের উত্তরাঞ্চলের এই শরণার্থী শিবিরটি উচ্ছেদ করার ঘোষণা দিয়েছিলেন। এ শরণার্থী শিবিরকে তিনি কুর্দি মিলিশিয়াদের জন্য স্বর্গ বলে আখ্যায়িত করেছিলেন। গত বৃহস্পতিবার এরদোগান বলেছিলেন, ‘উত্তর ইরাকে তুরস্ক সীমান্ত থেকে ১৮০ কিলোমিটার দক্ষিণে মাখমুর নামক এলাকায় দুই দশক ধরে হাজার হাজার তুরস্কর শরণার্থী আশ্রয় নিয়েছে। এই শরণার্থী শিবিরটি জঙ্গিদের প্রজনন কেন্দ্র। আমরা অবশ্যই এর মোকাবিলা করব’। এরদোগানের এমন বক্তব্যের তিন দিনের মাথায় ওই শরণার্থী শিবিরে হামলা চালালো আঙ্কারা। গত বছর থেকেই উত্তর ইরাকে কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টির বিভিন্ন ক্যাম্পে অভিযান বাড়িয়েছে আঙ্কারা। কুর্দি মিলিশিয়া ঘাঁটি ধ্বংস করার লক্ষ্যে প্রায়ই ইরাকের সীমান্ত ভেদ করে দেশটির অভ্যন্তরে হামলা পরিচালনা করছে তুরস্ক।