দৌলতপুরে স্কুলে হামলা চালিয়ে ৩ শিশুকে পিটিয়ে আহত করেছে এক অভিভাবক

0
633

আছানুল হক, দৌলতপুর প্রতিনিধি:: কুষ্টিয়া দৌলতপুরে এক প্রাথমিক বিদ্যালয়ে  হামলা চালিয়ে ৩ শিশুকে পিটিয়ে আহত করেছে এক অভিভাবক। বুধবার দুপুর দেড়টার দিকে উপজেলার প্রাগপুর ইউনিয়নের মহিষকুন্ডি কারিগরপাড়া গ্রামে হামলার এ ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে রাজন নামে এক শিশুকে আশংকাজনক অবস্থায় দৌলতপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। স্কুলের শিক্ষক ও স্থানীয়রা জানায়, নাসির উদ্দিন বিশ্বাস সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেনীর ছাত্রী মিশু (৯) টিফিন চলাকালীন সময়ে খেলতে গিয়ে সহপাঠিদের সাথে ধাক্কা খেয়ে পড়ে যায়। এসময় সে কান্নাকাটি করতে করতে বাড়িতে গিয়ে তার বাবা হাচিব বিশ্বাস ওরফে আলহাজ্বকে বলে।
আলহাজ্ব ক্ষিপ্ত হয়ে ওই স্কুলে হামলা চালিয়ে স্কুলে চলাকালীন সময়ে তৃতীয় শ্রেণীর কক্ষে প্রবেশ করে হাফিজুল ইসলামের ছেলে রাজন (৯), নীল বাবুর ছেলে নাফিস (৯) ও শরিফুলের ছেলে অন্তর (৯) কে শিক্ষকের সামনে বেদম মারপিট করে। স্কুলের প্রধান শিক্ষক শামীমা খাতুনসহ অন্যান্য শিক আলহ্জ্বাকে বাঁধা দেওয়ার চেষ্টা করলে তাদেরও লাঞ্ছিত করে তৃতীয় শ্রেণীর ওই ৩ ছাত্রকে পিটিয়ে আহত করে বীরদর্পে ঘটনাস্থল থেকে নির্বিঘ্নে চলে যায়। পরে আহত ৩ শিশুকে উদ্ধার স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় রাজনকে দৌলতপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হামলার ঘটনার বিষয়ে নাসির উদ্দিন বিশ্বাস সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শামীমা খাতুন জানান, আলহাজ্ব নামে এক অভিভাবক স্কুলে হামলা
চালিয়ে তৃতীয় শ্রেণীর ৩ ছাত্রকে বেদম মারপিট করেছে। বাঁধা দিতে গেলে তাদেরও অকথ্য ভাষায় গালমন্দ
করে লাঞ্ছিত করে। এব্যাপারে দৌলতপুর থানার ওসি মোল্লা মোঃ খবীর অাহমেদ জানান এ ঘটনায় গতকাল সন্ধ্যায় দৌলতপুর থানায় রাজনের পিতা ও স্কুল কর্তৃপক্ষ দু’টি পৃথক অভিযোগ দিয়েছে তদন্ত করে ব্যাবস্থা নিয়া হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ