কমিটি গঠনের মধ্য দিয়ে বিএনপির আনুষ্ঠানিক ভাঙন শুরু : হাছান মাহমুদ

0
883
গড়াইনিউজ২৪.কম:: কেন্দ্রীয় কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার মধ্য দিয়ে বিএনপির আনুষ্ঠানিক ভাঙন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড.হাছান মাহমুদ এমপি। সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা পরিষদ আয়োজিত জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে এক আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড.হাছান মাহমুদ এ মন্তব্য করেন। তিনি বলেন শুধুমাত্র যে কেন্দ্রীয় কমিটির অনেকেই বিএনপি ছেড়ে যাচ্ছে তা নয় জেলা-উপজেলা কমিটির অনেকেই কমিটি থেকে পদত্যাগ করছে।বিএনপির অবস্থা যে অত্যন্ত শোচনীয়,দলটিতে যে অন্তঃকোন্দল চলছে কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার মধ্য দিয়েই তা এবার প্রকাশ্যে এসেছে। তিনি বলেন,পাড়া-মহল্লার ক্লাবের কমিটিও এতো বড় হয় না বিএনপি প্রায় ছয়শ সদস্যের যে কমিটি দিয়েছে। তাদের কমিটির পরিধি এতোই বড় যে তারা কখনোই একসাথে বসে মিটিং করতে পারবে না কারণ দলীয় কার্যালয় এমনকি প্রেসক্লাবেও এ কমিটির জায়গা হবে না। এ সময় হাছান মাহমুদ বিএনপির পূর্ণাঙ্গ কমিটিকে সার্কাস পার্টির সাথে তুলনা করেন। তিনি বলেন, পত্রিকায় দেখলাম বিএনপির মহাসচিব বলেছেন খালেদা জিয়া নাকি অন্তর থেকে জাতীয় ঐক্যের কথা বলেছেন।আমার প্রশ্ন হচ্ছে ফখরুল সাহেব কিভাবে জেনেছেন বিএনপি নেত্রী অন্তরের কথা? আশা করেছিলাম ফখরুল সাহেব ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব থেকে ভারমুক্ত হয়ে পূর্ণাঙ্গ মহাসচিব হওয়ার পরে অতীতে যে লাগামহীন মিথ্যা কথা বলতেন তা পরিহার করবেন।কিন্তু তিনি তার অভ্যাস পরিহার করতে পারেন নি। জাতীয় শোক দিবসের আলোচনায় হাছান মাহমুদ বলেন, বঙ্গবন্ধুর হত্যাকান্ড নিছক একটি হত্যাকান্ড ছিল না। এটি ছিল একটি জাতির উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে বাধাগ্রস্থ করার চক্রান্ত। দেশি ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে জাতির জনককে হত্যা করা হয়েছিল। যারা এ হত্যাকাণ্ডের সাথে সরাসরি জড়িত ছিল ইতিমধ্যে তাদের শাস্তি হয়েছে। জাতির স্বার্থে, ইতিহাসের কলঙ্ক মোচনে যারা কুশীলব ছিল এ হত্যাকান্ডের নেপথ্যে একটি কমিশন গঠন করে তাদের মুখোশ উন্মোচন করা এখন সময়ের দাবি। ব্যারিস্টার জাকির হোসেনের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন প্রখ্যাত লেখক-কলামিস্ট খন্দকার মোজাম্মেল হক, হাসিবুর রহমান মানিক, শাহাদাত হোসেন টয়েল, এমএ করিম প্রমুখ।