কুষ্টিয়ায় পদ্মা ও গড়াই নদীর পানি বৃদ্ধি

0
387
গড়াই নিউজ ডেস্ক:: কুষ্টিয়ায় নদ-নদীর পানির উচ্চতা প্রতিদিন গড়ে ৬ ইঞ্চি করে বৃদ্ধি পাচ্ছে। গত এক সপ্তাহে পদ্মা ও গড়াইয়ে পানি বৃদ্ধির হার সবচেয়ে বেশি। তবে এই দুটি নদ-নদীর পানি এখনো বিপৎসীমার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। আজ রোববার সকাল ১০টার দিকে কুষ্টিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) নির্বাহী প্রকৌশলী পীযুষ কৃষ্ণ কুন্ডু আমাদের প্রতিনিধিকে বলেন প্রতিদিন গড়ে ৬ ইঞ্চি করে পানির উচ্চতা বাড়ছে। তবে এতে আতঙ্কের কিছু নেই। পাউবো বলছে, হার্ডিঞ্জ সেতু পয়েন্টে পদ্মার পানির বিপৎসীমা ১৪ দশমিক ২৫ সেন্টিমিটার। গড়াইয়ের কুমারখালী রেলসেতু পয়েন্টে বিপৎসীমা নির্ধারিত হয় ১২ দশমিক ৭৫ সেন্টিমিটার। পদ্মার হার্ডিঞ্জ সেতু পয়েন্টে গতকাল রোববার সকালে পানির উচ্চতা পরিমাপ করা হয় ৯ দশমিক ৪৫ সেন্টিমিটার। গড়াইয়ে পানির উচ্চতা ৭ দশমিক ৭৬ সেন্টিমিটার। এক সপ্তাহ আগে গত ৭ জুলাই পানির উচ্চতা ছিল পদ্মায় ৭ দশমিক ৭১ ও গড়াইয়ে ৬ দশমিক ৪০ সেন্টিমিটার। পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা বলছেন, যমুনার পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ পয়েন্টে পদ্মার পানির উচ্চতা বেড়ে গেছে। এতেই কুষ্টিয়া অংশে পদ্মা ও গড়াইয়ের পানি নিচের দিকে নামতে পারছে না। এতে পদ্মা ও গড়াইয়ে পানি বেড়েছে। উজানে ভারতের অংশে বৃষ্টিপাত বেড়ে গেলে গঙ্গার পানি বৃদ্ধি পাবে। তখন পদ্মার পানিও আরও বেড়ে যাবে। এতে আতঙ্কের কিছু নেই। কুষ্টিয়া শহর রক্ষা বাঁধসহ কুষ্টিয়া অংশের যতগুলো বাঁধ আছে সব বাঁধের নিয়মিত তদারকি করা হচ্ছে বলে পাউবোর কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। গত শুক্রবার পদ্মা-গড়াইয়ের মোহনায় গিয়ে দেখা যায়, কুষ্টিয়া সদর উপজেলার হরিপুর চরাঞ্চল তলিয়ে গেছে। তবে সেখানে বাঁধ নির্মাণ করায় বসত এলাকায় পানি ঢুকতে পারেনি।

একটি উত্তর ত্যাগ