চুয়াডাঙ্গায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১৩

0
902

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি, গড়াইনিউজ২৪.কম:: চুয়াডাঙ্গায় মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৩জনে দাঁড়িয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও অনেকেই। রবিবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে জেলার যশোর সড়কের জয়রামপুর বটতলা মোড়ে এই দুঘর্টনা ঘটে। স্থানীয়রা জানান, হতাহতরা সবাই দামুড়হুদা উপজেলার সীমান্তবর্তী বড়বলদিয়া গ্রামের বাসিন্দা। পেশায় সবাই মাটি কাটা শ্রমিক। কাজের সন্ধানে নিজ গ্রাম থেকে আলমসাধু যোগে চুয়াডাঙ্গায় আসার পথে চুয়াডাঙ্গা-জীবননগর সড়কের জয়রামপুর গ্রামের বটতলা মোড়ে এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- দামুড়হুদা উপজেলার বড় বলদিয়া গ্রামের মৃত ভোলাই মন্ডলের ছেলে বিল্লাল, রমজান আলীর ছেলে রফিকুল, মৃত কানাই মন্ডলের ছেলে লাল মোহাম্মদ, মৃত রহিম বক্সের ছেলে আবদার আলী, মৃত ঠান্ডু মন্ডলের ছেলে বিল্লাল হোসেন, মৃত আইনাল আলীর ছেলে আকুব্বর মন্ডল, গোলাম হোসেনের ছেলে ইজ্জত আলী, একই গ্রামের মৃত কিতাব আলীর ছেলে নজির উদ্দীন, গাজী মালিথার ছেলে শান্ত, মৃত বাবলুর ছেলে হাফিজুর রহমান, খোদা বক্সের ছেলে জজ মিয়া, রমজান আলীর ছেলে শাহীন ও পাশ্ববর্তী সুলতানপুর গ্রামের ফিরোজ আলীর ছেলে শফিকুল ইসলাম। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুর্ঘটনার পরপরই স্থানীয় গ্রামবাসী ও চুয়াডাঙ্গা ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা নিহত ও আহতদের উদ্ধার করেন। চুয়াডাঙ্গা ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের উপ-পরিচালক আব্দুস সালাম জানান, দুর্ঘটনাস্থল থেকে তারা আট জনের মরদেহ উদ্ধার করেন। চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে দুজন, দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এক জন এবং চুয়াডাঙ্গা থেকে রাজশাহী নেওয়ার সময় মারা যায় আরও দুজন জন। দুর্ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী ট্রাকটি ভাঙচুর করে। এ সময় চুয়াডাঙ্গা জীবননগর ও চুয়াডাঙ্গা যশোর সড়কে সব ধরনের যানচলাচল বন্ধ হয়ে যায়। চুয়াডাঙ্গার সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) মো. কলিমুল্লাহ জানান, দুর্ঘটনার পর ট্রাকচালক পালিয়ে যাওয়ায় তাকে আটক করা যায়নি। তবে ট্রাকটি চুয়াডাঙ্গা শহরের জনৈক রতনের বলে জানা গেছে। জেলা প্রশাসক সায়মা ইউনুস জানান, প্রাথমিকভাবে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে দাফনের জন্য নিহতদের প্রত্যেক পরিবারকে ১০ হাজার ও আহতদের চিকিৎসার জন্য ১০ হাজার টাকা করে আর্থিক সহযোগিতা দেয়া হবে।