কুষ্টিয়ায় আবাসন রক্ষা বাঁধের বালি কেটে বিক্রি !

0
87

কুষ্টিয়া অফিস, গড়াইনিউজ২৪.কম:: কুষ্টিয়ার কুমারখালীর নন্দলালপুর ও লালন আবাসন রক্ষা বাঁধের বালি বিক্রির অভিযোগ পাওয়া গেছে যদুবয়রা ইউপি চেয়ারম্যানের ভাই রঞ্জুর বিরুদ্ধে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের ৪০ লাখ টাকা ব্যায়ে নির্মিত আবাসন রক্ষা বাঁধ কেটে প্রতিদিন শত শত গাড়ি বালি বিক্রি করলেও এখনো নজরে আসেনি প্রশাসনের। বৃহস্পতিবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ২ টা ভেকু মেশিন দিয়ে বালি উত্তোলনের মহাযজ্ঞ। ইতিমধ্যে আবাসন রক্ষা বাঁধের মাঝখান পর্যন্ত বালু কাটার কারণে বাঁধটি হুমকির মুখে পড়েছে। এসময় ঘটনাস্থলে বালু বিক্রির কাজে নিয়োজিত রফিকুলের সাথে কথা বললে জানান, আবাসন রক্ষা বাঁধের বালি ইজারা নিয়ে বিক্রি করছেন যদুবয়রা ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান। পরবর্তীতে কথা ঘুরিয়ে বলেন ইজারাদার চেয়ারম্যানের চাচাতো ভাই রঞ্জু বালু বিক্রি করছেন। এ বিষয়ে ইজারাদার রঞ্জুর সাথে কথা বললে জানান, তার এলঙ্গী ও এলঙ্গী আচার্য বালুমহাল ইজারা নেয়া আছে। তার প্রেক্ষিতে বালু বিক্রি করছেন। আবাসন রক্ষা বাঁধের বালু বিক্রির বিষয়ে বলেন তার ইজারা নেবার সীমানার মধ্যে হওয়ায় তিনি বিক্রি করছেন। এসময় তিনি এলঙ্গী ও এলঙ্গী আচার্য বালুমহালের ইজারা নেবার বাংলা ১৪২৯ সালের চালান ফরম বের করে দেখান। এ বিষয়ে কুষ্টিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের কুমারখালীর দায়িত্ব প্রাপ্ত এস ডি ই নজরুল ইসলাম জানান, বিষয়টি আমার জানা নেই। অফিসে গিয়ে জেনে জানাবো। কুমারখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিতান কুমার মন্ডল জানান, এখনো পর্যন্ত বিষয়টি আমার জানা নেই। বিষয়টি জেনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।