ফারাক্কা বাঁধ তুলে দিলেও আমাদের ক্ষতি হবে না: মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া

জাতীয়

গড়াইনিউজ২৪.কম:: দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম বলেছেন, এক সময় আমরা বলেছি ফারাক্কার বাঁধ আমাদের জন্য মরণ ফাঁদ। কিন্তু এখন তা ভারতের জন্য মরণ ফাঁদ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ভারতের অনেকে একে মরণ ফাঁদ বলছেন। তারা ফারাক্কার পুরো বাঁধ ছেড়ে দিলে কিংবা ভেঙে দিলে আমাদের দেশে কোনো ধরনের সমস্যা হবে না। পদ্মার পানি এখনো বিপদসীমার নিচে আছে। রবিবার দুপুরে চাঁদপুর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ত্রাণমন্ত্রী বলেন, দুর্যোগ মোকাবেলায় আমার মন্ত্রণালয়ের সার্বিক প্রস্তুতি রয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত লোকদের সহায়তা করার জন্য আমরা নভেম্বর মাস পর্যন্ত প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছি। ফারাক্কার পানি আমাদের কোনো ধরনের সমস্যা হবে না বলে আমরা মনে করি। তারপরও বর্ষার শেষে পানি বৃদ্ধির আশঙ্কা থেকে যায়।’ মায়া বলেন, চাঁদপুরে সম্প্রতি বিদ্যুতের লোডশেডিংয়ে মাত্রা বেড়েছে। সরকার যে বিদ্যুৎ উৎপাদন করছে তাতে বিদ্যুতের কোনো সমস্যা থাকার কথা নয়। টেকনিক্যাল কোনো সমস্যা থাকলে সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলীরা লিখিত আকারে সমস্যা তুলে ধরলে সমাধানের চেষ্টা করবো। জেলা প্রশাসক মো. আব্দুস সবুর মন্ডলের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল, নৌ-পুলিশের এসপি সুব্রত কুমার হালদার, নারী মুক্তিযোদ্ধা ডা. সৈয়দা বদরুন্নাহার চৌধুরী। সভায় আগামী ঈদুল আজহায় কোরবানির পশুর হাট নিয়ন্ত্রণ ও চাঁদপুরের নৌ, সড়ক ও রেলপথে যাত্রীদের নিরাপত্তা বৃদ্ধির জন্য সংশ্লিষ্টদের ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেয়া হয়।